Header Ads

Header ADS

5g (৫জি) কি? কিভাবে 5g কাজ করে? বাংলাদেশে কবে 5g চালু হবে? (পর্ব-১) ।

5g  (৫জি) কি? কিভাবে 5g কাজ করে? বাংলাদেশে কবে 5g চালু হবে? (পর্ব-১)

5G (৫জি)
5G...... কি এই 5G?

5G হচ্ছে মোবাইল নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির পঞ্চম জেনারেশন, 1G, 2G, 3G এবং 4G এর পরে এবার 5G ই আসার পালা, যেহেতু প্রত্যেক ১০ বছর পরে নতুন মোবাইল নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি সমিনে আসে।


1G, 2G, 3G, এর পর শেষ পর্যন্ত আমরা 4G নেটওয়ার্ক পেয়ে গেলাম, এবার আমাদের চিন্তা ধারা 5G,  যখনি বাজারে একটু দামি কোন নতুন ফোন আসে বা আমরা একটু দামি কোন নতুন ফোনের রিভিউ দেখি এবং জানতে পারি ঐ ফোনটিতে qualcomm snapdragon x50 প্রসেসর লাগানো আছে তখনি আমাদের মনে এমন একটা ভাবনা  আসে এই  ফোনটি কি  5g রেডি বা এই ফোনটিতে কি 5g আছে? আমরা অনেকেই হরহামেশা এই প্রশ্নটি করে থাকি। দেখুন এটা খুব সোজা এবং কমন একটা প্রশ্ন, কিন্তু এই প্রশ্নটির পরিস্কার উত্তর হচ্ছে দিবা স্বপ্ন দেখে কোন লাভ নেই দিবা স্বপ্ন দেখবেন না।

আসলে আপনাদের কোন দোষ নেই বা আমাদের কোন দোষ নেই,  আমরা এরকমটা ভাবি তার কারন হচ্ছে qualcomm snapdragon x50 এই প্রসেসরটা আসলে 5g রেডি। 5g রেডি কথাটার মানে হচ্ছে এটাতে যদি 5g মডেম লাগানো হয় তাহলে েএই প্রসেসরটা আপনাকে 5g নেটওয়ার্ক কাভারেজে সাপোর্ট দিতে পারবে কিন্ত এই প্রসেসরটিতে  5g মডেম ইনবিল্ড লাগানো নেই, এবং বেশিরভাগ ফোনেই বলা যায় প্রায় সব ফোনেই এটা 5g মডেম ছারা প্রসেসর দিয়ে আমাদের কাছে ফোন আসে। হাতে গোনা দুই-একটা ফোন আছে পৃথিবীতে যে ফোন গুলোতে 5g আছে।

পৃথিবীর প্রথম 5G ফোনঃ

Samsung galaxy s10 5G পৃথিবীর প্রথম 5G ফোন
samsung galaxy s10 5G এইটাই পৃথিবীর প্রথম 5G ফোন যেটা এপ্রিল মাসে ২০১৯ সালে সাউথ কোরিয়াতে যখন 5g launch করেছিলো সেই মাসে ঐ ফোনটিতে 5G সাপের্ট পেয়েছিলেন সবাই। যেহেতু Samsung সাউথ কোরিয়ার কোম্পানি এবং 5G প্রথম সাউথ কোরিয়াতে launch করা হয়েছিলো  সেহেতু সাউথ কোরিয়াতে এই দুটি রেকর্ড এক সাথে তৈরি হয়েছিলো, আরো একটি মজার বিষয় হলো সর্বপ্রথম ৬ জন সেলিব্রেটিকে 5G  ব্যাবহার করতে দেওয়া হয়েছিলো তাই সাধারন মানুষ 5G ইউজ করেছে এটা  সাউথ কোরিয়াতেই প্রথম হয়েছিলো এটা সারা বিশ্বে চিরকালীন রেকর্ড রয়েগেলো।  যদিও  USA কারো থেকে পিছিয়ে থাকবেনা এটা তাদের একটা পন আছে, অতএব তারা মাত্র ছয় ঘন্টার মধ্যে সিকাগো শহরে 5G launch করেছিলো কিন্ত রেকর্ডতো রেকর্ডই এটা আর কোন দিন পালটানো যাবেনা। এচারাও সাউথ কোরিয়াতে আরেকটি দারুন ব্যাপার হয়েছিলো মাত্র ৬৯ দিনের মধ্যে ১ মিলিয়ন মানে ১০ লাখ মানুষ 5G ব্যাবহার করা শুরু করেছিলেন।

এবার প্রশ্ন এসে আমাদের ভারত বাংলাদেশ গুলতে কি হবে আমাদের এখানে 5G কবে আসবে?  খুব বাস্তব সত্যিটা হচ্ছে  দিবা স্বপ্ন দেখে কোন লাভ হবেনা আপাতত আমাদের এখানে 5G আসার কোন নাম-গন্ধ নেই বা 5G আসছেনা।  এর কারন 5G সবেমাত্র এখানে ইনেস্টল হচ্ছে এবং এর প্রসেসটা অনেক লম্বা এর জন্য অনেক সময় দরকার।

২০২০ সালে হয়তোবা এর টেস্টিং শুর হবে এবং আমাদের সাধারন মানুষের নাগালে 5G আসতে ২০২১ সালের শেষ বা ২০২২ সাল পর্যন্ত সময় লাগতে পারে  5G আমাদের হাতে এসে পৌছতে । তাই আপাতত 5G ফোনের দিকে নজর দেওয়ার কোন দরকার নেই এবং এখনি 5G ফোনের জন্য অর্থ ইনভেস্ট করার কোন প্রয়োজন নেই, কারন 5G ফোন এখন হাতে গোনা অল্প কিছু দামি ফোন ছারা নেই, অতএব ৫জি ফোন কেনার চিন্তা ভাবনা মাথা থেকে ঝেরে ফেলুন।

qualcomm snapdragon x865 এই প্রসেসরটা 5G রেডি  মানে 5G নিয়ে আসবে, এটার দুটি ভার্সন আসবে একটিতে মডেম অলরেডি লাগানো থাকবে অন্যটা হচ্ছে 5G মোডেম লাগালে ঐ ফোনে 5G সাপোর্ট পাওয়া যাবে, তখন ক্রমশ আমাদের কাছে available available  হতে থাকবে 5G ফোন। তবে 5G নেটোয়ার্ক এতো সহজে পাওযা যাবেনা কারন সেখানে বেশ কিছু সমস্যা রয়েছে  5G নেটোয়ার্ক এর ব্যাপারটা এতো সহজ নয়।

আজ এ পর্যন্তই, ৫জি সম্পর্কে আরও তথ্য জানতে ২য় পর্ব ফলো করুন।

আল্লাহ্ হাফেজ।

No comments

Powered by Blogger.