Header Ads

Header ADS

আজ আমরা হোয়াটসঅ্যাপের ৫টি নিরাপত্তা টিপস নিয়ে আলোচনা করবো যা পালন করা আবশ্যকঃ 

১) লক হোয়াটসঅ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপের সবচেয়ে দরকারি নিরাপত্তা টিপস হল একে একটি পাসওয়ার্ড বা পিন দ্বারা নিরাপদে রাখা। হোয়াটসঅ্যাপ নিজে এমন কোন ফাংশন প্রদান করে না, কিন্তু একটি তৃতীয় পক্ষের অ্যাপ্লিকেশান এই কাজটি করতে পারবে। এটা কষ্টকর মনে হতে পারে কিন্তু আপনি যদি আপনার ফোন হারান তবে এটি অন্য কাউকে আপনার চ্যাট অ্যাক্সেস থেকে প্রতিরোধ করে। Messenger and Chat Lock, Lock for WhatsApp এবং Secure Chat তিনটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশান যা পাসওয়ার্ড বা পিন দ্বারা হোয়াটসঅ্যাপ লক করতে সাহায্য করে।

 ২) ফটোরোলে হোয়াটসঅ্যাপ ছবি উপস্থিত হওয়া ব্লক করুন হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথনের মাঝে কেউ যদি ছবি শেয়ার করে তবে তা আপনার সাধারণ ফটো ফোল্ডারে জমা হয়। তাই হোয়াটসঅ্যাপ ছবি একটি আলাদা ফোল্ডারে জমা রাখার চেষ্টা করুন। আইফোনের ক্ষেত্রে অবশ্য সহজ উপায় হল আপনার ফোনের সেটিংস মেনু থেকে Privacy তে গিয়ে Photos থেকে WhatsApp সরিয়ে ফেলুন ফলে হোয়াটসঅ্যাপের কোন ছবি আর আপনার সাধারণ ফটোরোলে জমা হবেনা। অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা অবশ্য একটি ফাইল এক্সপ্লোরার অ্যাপ্লিকেশন ES File Explorer ব্যবহার করেতে পারেন যা হোয়াটসঅ্যাপের 'ছবি' এবং 'ভিডিও' ফোল্ডার খুঁজে বের করে 'nomedia' নামে আলাদা ফাইল তৈরি করে এবং এটি অ্যান্ড্রয়েড গ্যালারি ফোল্ডার স্ক্যান করা বন্ধ করে।

৩) প্রোফাইল পিক অ্যাক্সেস সীমাবদ্ধ রাখুন আপনি কি আপনার হোয়াটসঅ্যাপের প্রোফাইল ফটো লিঙ্কডইন, ফেসবুক, টুইটার বা অন্য কোথাও এমনকি আপনার কোম্পানীর ওয়েবসাইটে ব্যবহার করছেন? এমনটি যদি হয় এবং আপনি আপনার হোয়াটসঅ্যাপ পাবলিক করে রেখেছেন, তাহলে যে কোন অবাঞ্ছিত বার্তার শুধু উত্তর দিলেই যে কেউ আপনার হোয়াটসঅ্যাপ প্রোফাইল থেকে আপনার ছবিটি ডাউনলোড করতে পারবে এছাড়া গুগল ইমেজ সার্চ ব্যবহার করে আপনার সম্পর্কে আরও অনেক তথ্য বের করতে পারবে। তাই Privacy menu থেকে প্রোফাইল ছবি শেয়ারিং "contacts only" তে সেট করে রাখুন।

৪) স্ক্যাম থেকে বিরত থাকুন হোয়াটসঅ্যাপ কখনোই নিজের অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে না। এমনকি হোয়াটসঅ্যাপ কখনোই আপনাকে চ্যাট, ভয়েস মেসেজ, পেমেন্ট, পরিবর্তন, ফটো, ভিডিও সম্পর্কে ইমেলও করবেনা যদিনা আপনি তাদের কাছে সাহায্যের জন্য ইমেইল করেন। বিনামূল্যের সাবস্ক্রিপশন প্রস্তাব অথবা আপনার অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত করার জন্য যদি কোন লিঙ্ক আসে তবে কখনোই এগুলোতে ক্লিক করবেন না এমনকি হোয়াটসঅ্যাপ থেকে এসেছে বলে দাবি করা হলেও এসবে বিশ্বাস করবেন না।

 ৫) ফোন হারিয়ে গেলে হোয়াটসঅ্যাপ ডিয়েকটিভেট করুন হোয়াটসঅ্যাপ আপনার ফোন হারিয়ে গেলে অথবা চুরি হলে আপনার অ্যাকাউন্ট নিয়ন্ত্রণ রাখার জন্য ব্যবহারকারীদের সহজ এবং কার্যকরী নিরাপত্তা টিপস প্রস্তাব করে। আপনার ফোন হারিয়ে গেলে অথবা চুরি হলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চুরি হওয়া বা হারিয়ে যাওয়া ফোন নম্বরটি আপনার নেটওয়ার্ক প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের সাহায্যে লক করে প্রতিস্থাপন সিম তুলে অন্য যেকোনো ফোনে ঢুকিয়ে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টে ঢুকুন। হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাপ্লিকেশনটি একই টাইমে শুধুমাত্র একটি নাম্বারে কার্যকরী ফলে আপনি যদি সঙ্গে সঙ্গে আপনার অ্যাকাউন্টে লগইন করেন তবে কেউ আপনার পুরনো ফোন ব্যবহার করে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টে ঢুকতে পারবেনা। যদি তা সম্ভব না হয় তবে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টটি ডিয়েকটিভেট করতে পারেন।

No comments

Powered by Blogger.